September 26, 2022, 6:05 am

সাতক্ষীরায় সাফজয়ী ডিফেন্ডার মাসুরা বাস করেন খাস জমিতে

  • Last update: Thursday, September 22, 2022

আবদুল্লাহ আল মামুন, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধিঃ জেলা প্রশাসকের নির্দেশে সড়ক বিভাগের দেয়া লাল ক্রস চিহ্ন মুছে ফেলা হলো !সাফ চ্যাম্পিয়ন দলের নারী ফুটবলার মাসুরা পারভিন ( ডিফেন্ডার ) তার বাবা-মা বসবাস করেন সাতক্ষীরা সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গায়। নিজেদের কোন জায়গাজমি নেই তাদের। কয়েক বছর আগে মাছুরার পিতা ৮ শতক সরকারি খাস জমি নিজের নামে বন্দোবস্ত পেয়েছেন। কিন্তু সেই জমি নীচ হওয়ায় ও পানি জমায় সেখানে বাড়ি-ঘর তৈরী করতে পারেননি মাছুরার দরিদ্র পিতা। তারা বর্তমানে বসবাস করেন সড়ক বিভাগের রাস্তার ধারের সরকারি খাস জমিতে।

সম্প্রতি সড়ক বিভাগ সড়ক সম্প্রসারন করার উদ্যোগ নিয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় মাছুরাদের বাড়ি উচ্ছেদের নোটিস জারি করেছে সড়ক বিভাগ। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বাড়ি ভেঙে নেয়ার নির্দেশও দেয়া হয়েছে। বাড়িতে লাল রঙের ক্রস চিহ্ন মেরে দেয়া হয়েছে। কোথায় যাবে বিশে^র দরবারে সুনাম কুড়িয়ে ফেরা নারী ফুটবলার মাছুরার হতদরিদ্র পরিবার ? এই চিন্তায় যখন পুরো পরিবার হতাশাগ্রস্ত ঠিক তখনই খবর এলা দেশের জন্য মাছুরাদের সুনাম অর্জনের কথা। ঢাকায় যখন মাছুরাদের নিয়ে আনন্দবন্যা বইছে তখন মাছুরার চিন্তা যেন পিছু ছাড়ছেনা। বাড়িতে গিয়ে কোথায় থাকবে, কোথায় রাখবে হতদরিদ্র পিতা-মাতাকে । কোথায় একটু মাথা গোজার ঠাই মিলবে তাদের।

Advertisements

আজ বৃস্পতিবার দুপুরে হঠাৎ সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর মাছুরার বাড়িতে হাজির পরিবারের খোঁজ খবর নিতে। গিয়ে জানতে পারেন তাদের অসহায়ত্বের কথা। তিনি তাৎক্ষনিক ভাবে আদেশ দেন মাছুমা পারভিনের বাড়িতে যে লাল রঙের ক্রস চিহ্ন দেয়া হয়েছে সে-টি মুছে ফেলতে।
জেলা প্রশাসকের নির্দেশে সাফ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য মাসুরা পারভীনের সাতক্ষীরার বাড়ির আঙিনায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের দেয়া লাল রঙের (ক্রস চিহ্ন) মুছে ফেলা হয়েছে।বৃহস্পতিবার দুপুরে সওজ কর্তৃপক্ষের দেয়া এই লাল ক্রস চিহ্ন মুছে ফেলা হয়।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এর নির্দেশনায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা’র উপস্থিতিতে সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম এটি মুছে দেন।মাসুরার বাবা রজব আলী বলেন, এই লাল চিহ্ন দেওয়ার পর থেকে খুবই চিন্তায় ছিলাম। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে তারা সেটি মুছে ফেলার উদ্যোগ দিয়েছে।

সাতক্ষীরার লাবসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম বলেন, মাসুরা পারভীন শুধু সাতক্ষীরার গর্ভ না, মাসুরা আমাদের লাবসা ইউনিয়ন পরিষদের অহংকার। আমি নিজে হাতে সওজ এর দেয়া লাল ক্রস চিহ্ন মুছে ফেলেছি। তার জন্য আমরা ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে অবশ্যই সুনজরে রাখব।

Advertisements

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোঃ হুমাযুন কবির বলেন, যতদিন না পর্যন্ত মাছুরা পারভীন এর পরিবার নিজেদের বাড়ি বাংলাদেশ সড়ক বিভাগের নিদ্ধারিত জায়গা থেকে সরিয়ে নতুন বাড়ি করবেন ততদিন পর্যন্ত তাদের (সওজ) কাজ স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন মাছুরার পিতা রজব আলীর নামে ইতোপূর্বে ৮ শতক সরকারি খাস জমি বন্দোবস্ত দেয়া হয়েছে। ওই জমি একটু নীচু। বাড়ি করতে গেলে সেখানে মাটি ভরাট করতে হবে। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন এ ব্যাপারে সব ধরনের সহায়তা দিবে।

Drop your comments:

Please Share This Post in Your Social Media

আরও বাংলা এক্সপ্রেস সংবাদঃ
© 2022 | Bangla Express | All Rights Reserved
With ❤ by Tech Baksho LLC