বুর্জ খলিফার চূড়ায় এমিরেটসের বিজ্ঞাপনের শুটিং

আমিরাত সংবাদ টপ নিউজ
Share this news with friends:

মাটি থেকে ৮২৮ মিটার উপরে উঠলে অনেকেরই ভয়ে গলা শুকিয়ে আসবে, হাত-পা কাঁপবে। অথচ সেই উচ্চতায় হচ্ছে বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং, তাতে দেখা যাচ্ছে কেবল এক নারীকে। সম্প্রতি এমনই এক ‘অসাধ্য’ সাধন করেছে আমিরাতের এমিরেটস এয়ারলাইন্স। কোনো ধরনের ‘গ্রিন স্ক্রিন’ বা স্পেশাল ইফেক্টস ছাড়াই বুর্জ খলিফার চূড়ায় এক নারীকে দাঁড় করিয়ে বিজ্ঞাপনের শুটিং সেরেছে তারা। কিন্তু কীভাবে?

দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস জানিয়েছে, এমিরেটসের বিজ্ঞাপনচিত্রে দেখা যাওয়া ওই সাহসী নারীর নাম নিকোল স্মিথ-লুডভিক। তিনি পেশাদার স্কাইডাইভিং ইনস্ট্রাক্টর। বুর্জ খলিফার চূড়ায় ওঠা হাতেগোনা কিছু মানুষের তালিকায় সম্প্রতি যোগ হয়েছে তার নাম। এর আগে দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম ও হলিউড তারকা টম ক্রুজসহ অল্প কয়েকজনের বুর্জ খলিফার চূড়ায় ওঠার সৌভাগ্য হয়েছিল।

Advertisements

কী আছে বিজ্ঞাপনে?
৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিওক্লিপে দেখা যায়, এমিরেটসের কেবিন ক্রুদের ইউনিফর্ম পরা নিকোলের হাতে কয়েকটি সাদা বোর্ড রয়েছে, যাতে আমিরাতকে যুক্তরাজ্যের ভ্রমণ সংক্রান্ত আম্বার তালিকায় যুক্ত করায় খুশি হওয়ার কথা বলা হচ্ছে। শুরুতে এটিকে আর দশটা সাধারণ জায়গার মতো মনে হলেও ক্যামেরা দূরে যেতেই পরিষ্কার হয়ে ওঠে নিকোলের অবস্থান। দেখা যায়, তিনি একা দাঁড়িয়ে রয়েছেন বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন বুর্জ খলিফার চূড়ায়।

কীভাবে হলো বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং?

এমিরেটস কর্তৃপক্ষের তথ্যমতে, বিজ্ঞাপনটি চিত্রায়িত হয়েছে ব্যাপক পরিকল্পনা, প্রশিক্ষণ, পরীক্ষা আর কঠোর সুরক্ষা প্রোটোকল অনুসরণের ভিত্তিতে। কাজটি মোটেও সহজ ছিল না। ৮২৮ মিটার উঁচু বুর্জ খলিফার চূড়ায় উঠে মাত্র ১ দশমিক ২ মিটার অর্থাৎ চার ফুটের চেয়েও ছোট একটি প্ল্যাটফর্মের ওপর দাঁড়িয়ে সব কাজ সারতে হয়েছে মডেলকে।

Advertisements

এমিরেটস জানিয়েছে, বিজ্ঞাপনের মডেল খুঁজতে তাদের নিজস্ব কেবিন ক্রুদের মধ্য থেকেই আগ্রহীদের ডাকা হয়েছিল, তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন যোগ্যও ছিলেন। তবে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শেষ পর্যন্ত একজন পেশাদার স্কাইডাইভার ইনস্ট্রাক্টরকেই বেছে নেয়া হয়। এরপরও বিজ্ঞাপনচিত্রের গোটা শুটিও ও এর প্রস্তুতিকালে নিরাপত্তার বিষয়টি ছিল সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারে।

এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষের ভাষ্যমতে, বুর্জ খলিফার চূড়ায় দাঁড়ানোর জন্য একটি পোলযুক্ত কাস্টম প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হয়েছিল। ইউনিফর্মের নিচ দিয়ে লুকিয়ে প্ল্যাটফর্মের ওই পোলটি নিকোলের সঙ্গে সংযুক্ত ছিল, এছাড়া চূড়ার আরও দুটি প্রান্তের সঙ্গে সরাসরি বাঁধা ছিলেন তিনি।

সোনালি আলো পেতে শুটিং শুরু হয়েছিল একদম সূর্যোদয়ের সময়। সূর্য ওঠার অনেক আগেই চূড়ায় ওঠা শুরু করে বিজ্ঞাপন সংশ্লিষ্ট টিম। বুর্জ খলিফার ১৬০ তলা থেকে শীর্ষে পৌঁছতে তাদের প্রায় ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট সময় লেগেছিল বলে জানিয়েছে এমিরেটস কর্তৃপক্ষ।

চূড়ায় পৌঁছতে টিউবের ভেতর কয়েক ধাপে মই সংযুক্ত করতে হয়েছিল বিজ্ঞাপন টিমকে। তারা সেখানে ছিলেন পাঁচ ঘণ্টার মতো। পুরো সিকোয়েন্স ধারণ করতে ব্যবহার করা হয়েছিল একটি ড্রোন।

Advertisements

এমিরেটস জানিয়েছে, ৮২৮ মিটার উঁচুতে ধারণ করা এ বিজ্ঞাপন গোটা বিশ্বের মধ্যেই সর্বোচ্চ উচ্চতায় ধারণ করা বিজ্ঞাপনগুলোর মধ্যে অন্যতম।

বুর্জ খলিফার চূড়ায় টম ক্রুজ

প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট স্যার টিম ক্লার্ক বলেন, বুর্জ খলিফার চূড়ায় শুটিংয়ের অনুমতি পাওয়া কিছু বিশিষ্টজনের মধ্যে যেতে পেরে আমরা গর্বিত। আমাদের সুন্দর শহর দুবাইকে দেখাতে পেরে আমরা আরও বেশি গর্ববোধ করছি।

Advertisements

জানা গেছে, দর্শকদের জন্য প্রাসঙ্গিক বার্তা সংযোজন করে এমিরেটসের নেটওয়ার্কের বিভিন্ন দেশে বিজ্ঞাপনটি দেখানো হবে। এর প্রথম টিভি ক্যাম্পেইন শুরু হবে যুক্তরাজ্যে।

Drop your comments: