প্রেমিকার বাড়ির সামনে প্রেমিকের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

টপ নিউজ বাংলাদেশ
Share this news with friends:

ভারতের এক পরিবারের বিরুদ্ধে মেয়ের প্রেমিককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয় অভিযোগ উঠেছে হত্যার পর ১৭ বছর বয়সী ওই কিশোরের যৌনাঙ্গও কেটে ফেলা হয়েছে।

গত শুক্রবার (২৩ জুলাই) রাতে বিহার রাজ্যের মুজফ্ফরপুরের কান্তি থানা এলাকার রেপুরা রামপুরশাহ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর এএনআইয়ের।

Advertisements

হত্যাকাণ্ডের পর ঘটনার সাথে জড়িতদের বাড়ির বাইরে বিক্ষোভ ও ভাঙচুর করেছে স্থানীয়রা। পাশাপাশি ক্ষুব্ধ জনতা নিহত সেই কিশোরের শেষকৃত্যও করেছে সেখানে।

এএনআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোরবারা এলাকায় প্রেমিকার বাড়িতে দেখা করতে গিয়েছিল সৌরভ কুমার নামের ওই কিশোর। এ সময় মেয়েটির বাড়ির লোকেরা তাকে সেখানে দেখে বেধড়ক মারধর করেন। পরবর্তীতে গুরুতর আহত অবস্থায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই মৃত্যু হয় সৌরভের।

ঘটনার পর পরই কান্তি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তও শুরু করেছে পুলিশ।

Advertisements

মুজফ্ফরপুরের পুলিশ সুপার রাজেশ কুমার বলন, প্রাথমিকভাবে দেখে মনে হচ্ছে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় ওই কিশোরকে খুন করা হয়েছে। তাকে বেধড়ক মারধর করা হয় ও তার যৌনাঙ্গ কেটে নেয়া হয়।

হত্যাকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত সুশান্তকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া সুশান্তের বাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগে আরও তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় ওই গ্রামে উত্তেজনা বিরাজ করায় পুরো এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Drop your comments: