প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি, টাঙ্গাইলে প্যানেল মেয়রকে আ.লীগ থেকে বহিষ্কার

টপ নিউজ বাংলাদেশ
Share this news with friends:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে কটূক্তির অভিযোগে টাঙ্গাইল পৌরসভার প্যানেল মেয়র হাফিজুর রহমান স্বপনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই বহিষ্কারের কথা জানানো হয়। রবিবার (১৩ জুন) রাত সোয়া ৮টার দিকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৫ জুন প্যানেল মেয়র হাফিজুর রহমান স্বপন শহরের আকুরটাকুর পাড়ায় একটি জমি পরিমাপকে কেন্দ্র করে ওই জমির মালিকের জামাতার সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। সে সময় প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করেন। এ ছাড়াও তিনি নানা অসৌজন্যমূলক বক্তব্য দেন। তার এই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মাঝে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। অনেকেই তাকে বহিষ্কারের দাবি জানান।

Advertisements

গত ৯ জুন প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কটূক্তির অভিযোগে হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানায় পৌর কাউন্সিলর আতিকুর রহমান মোর্শেদ বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। এ ছাড়া ফোনে হুমকি দেওয়ার ঘটনায় শহরের আকুরটাকুর পাড়ার প্রয়াত আশরাফ চৌধুরীর জামাতা মফিজুর রহমান টাঙ্গাইল সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, হাফিজুর ২০১৪ সালের জুন মাসে আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। তার পরই তিনি প্রথমে পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান। এরপর তিনি সহ-সভাপতি পদ পান। তিনি টাঙ্গাইল পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে পরপর চারবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। সর্বশেষ গত ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর প্যানেল মেয়রের দায়িত্ব পান।

বহিষ্কারের বিষয়ে জানতে চাইলে টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম সিরাজুল হক আলমগীর বলেন, ‘আমি এখন পর্যন্ত কোনও সঠিক তথ্য পাইনি। তাই আমি এ ব্যাপারে কোনও কথা বলতে পারছি না।’

Advertisements
Drop your comments: