May 27, 2024, 7:45 pm
সর্বশেষ:
মার্কিন ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সাংবাদিক ও প্রবাসী কনসালটেন্ট এজাজ মাহমুদের সঙ্গে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব ইউএইর মতবিনিময় এখন একটাই কাজ কুলাঙ্গার তারেক জিয়াকে দেশে ফেরত নিয়ে আসা: প্রধানমন্ত্রী শার্শায় ফসলি জমির মাটি বিক্রির সিন্ডিকেট বেপরোয়া, জড়িত খোদ ইউপি সদস্যরা ডাকাতির মামলায় ঢাবি ছাত্রলীগের দুই নেতা গ্রেফতার বৈশ্বিক চাহিদা অনুযায়ী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করা হবে: প্রবাসী প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবাজার পাইকারি বিপনী বিতান ও তিনটি উন্নয়ন প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ৮০ বছর পর মিলল মার্কিন সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ সোনারগাঁয়ে পরকীয়ার জেরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ, স্বামী আটক কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

দুবাইয়ে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারে অপরাধীকে গ্রেফতার

  • Last update: Tuesday, February 21, 2023

দুবাইয়ে মাত্র ৬০ দিরহাম (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় এক হাজার ৭০০ টাকা) নিয়ে বিরোধের জেরে দুই এশিয়ানের মধ্যে তুমুল ঝগড়া হয়। শেষ পর্যন্ত সেই ঝগড়ায় একজন খুন হন। খুনি পালিয়ে যান অজানা গন্তব্যে। এমন ঘটনার মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কৌশল এবং ক্যামেরা ব্যবহার করে অপরাধীকে গ্রেপ্তার করেছে দুবাই পুলিশ।

দুবাই পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত তার অপরাধ স্বীকার করার পর তাকে আরো আইনি প্রক্রিয়ার জন্য পাবলিক প্রসিকিউশনে পাঠানো হয়েছে।

আল-রিফা থানার পরিচালক কর্নেল ওমর মোহাম্মদ বিন হাম্মাদ জানান, রাস্তায় পার্ক করা একটি গাড়ির মধ্যে একজনকে ছুরিকাঘাতে হত্যার খবর পাওয়ার তিন মিনিটের মধ্যে আল আল রিফায়া থানার টহল পুলিশের দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এরপর তাদের সঙ্গে থাকা অ্যাম্বু্ল্যান্স মরদেহ ফরেনসিক বিভাগে নিয়ে যায়। বুকে ছুরিকাঘাতের পর ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ছুরিটি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

হাম্মাদ আরো জানান, অভিযুক্তকে ঘটনাস্থল থেকে অনেক দূরে একটি ভবন থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তি সেখান থেকেও পালানোর চেষ্টা করলে নিরাপত্তা দল তাকে ধরে ফেলে। এরপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তিনি স্বীকার করেছেন যে ভুক্তভোগীর সঙ্গে তার ৬০ দিরহাম নিয়ে বিরোধ ছিল। তাই তিনি তাকে হুমকি দেওয়ার উদ্দেশ্যে ছুরিটি কিনেছিলেন। কিন্তু তাদের মধ্যে ঝগড়া বড় হয়ে যায় এবং তিনি তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন।

হাম্মাদ বলেন, তদন্ত অনুসারে, অপরাধের হাতিয়ার ঘটনাস্থলে রেখে পালিয়ে যাওয়া আসামিকে তাড়া করার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। তদন্তদলের দক্ষতা ছাড়াও তিনি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কৌশল এবং আধুনিক ক্যামেরার প্রশংসা করেন। অপরাধ কমাতে এবং রেকর্ড সময়ে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করতে দুবাই পুলিশ উন্নত নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

উৎস: গালফ টুডে

Drop your comments:

Please Share This Post in Your Social Media

আরও বাংলা এক্সপ্রেস সংবাদঃ
© 2023 | Bangla Express Media | All Rights Reserved
With ❤ by Tech Baksho LLC