জরুরি ওষুধ পেয়ে বাংলাদেশকে ভারতের ধন্যবাদ

টপ নিউজ বাংলাদেশ
Share this news with friends:

মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) দ্বিতীয় ধাক্কায় বিপর্যস্ত বাংলাদেশের প্রতিবেশী বন্ধুরাষ্ট্র ভারত।দেশটির এই বিপদের দিনে বসে থাকেনি বাংলাদেশ। বাড়িয়ে দিয়েছে সহায়তার হাত।করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে জরুরি সহায়তার অংশ হিসেবে রেমডিসিভির ওষুধ পাঠিয়েছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার কলকাতায় বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনার তৌফিক হাসান ১০ হাজার রেমডিসিভির ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধির হাতে তুলে দেন।এই ওষুধ পেয়ে ঢাকাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে দিল্লি।

Advertisements

ওষুধ পেয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগিচী এক টুইট বার্তায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানান। টুইটে তিনি লিখেছেন, আকাশ ও সমুদ্রের পর এবার স্থলপথে বাংলাদেশ থেকে জরুরি ওষুধের একটি চালান পেট্রাপোল স্থল সীমান্ত দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে (ভারত) প্রবেশ করেছে। এই বিশেষ আচরণ ও সহযোগিতার জন্য আমাদের প্রতিবেশী এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধু বাংলাদেশকে ধন্যবাদ। দুই দেশের সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাবে বলে টুইট বার্তায় আশাবাদ ব্যক্ত করেন এই মুখপাত্র।

এদিকে ভারতে পাঠানো জরুরি ওষুধ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় বাংলাদেশের জনগণের পক্ষ থেকে ভারতকে করোনা মোকাবিলার জন্য বেক্সিমকো ফার্মার তৈরি রেমডিসিভির ওষুধ পাঠানো হয়েছে।

ভারতে বর্তমান করোনা পরিস্থিতি খুব নাজুক। ক্রমেই বেড়ে চলেছে সংক্রমণ ও মৃত্যু।লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা।গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ভারতে আরও ৩ হাজার ৯৭১ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। এই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ১২ হাজার ৯৫ জন। মৃত্যু ও শনাক্তের হিসাবে এখন পর্যন্ত এ সংখ্যা সর্বোচ্চ।

Advertisements

ভারতে সবমিলিয়ে এখন করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই কোটি ১০ লাখ ৪১ হাজার ৩৭০ জনে। আর মৃত্যু পৌঁছেছে দুই লাখ ২৯ হাজার ৫৭৩ জনে।মহারাষ্ট্রে বুধবার মৃত্যু হয়েছে ৯২০ জনের, উত্তরপ্রদেশে ৫৭৩ জনের আর কর্নাটকে ৩৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিন সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে মহারাষ্ট্রে ৫৭ হাজার ৬৪০ জনের।

Drop your comments:

Leave a Reply

Your email address will not be published.