June 24, 2024, 3:45 am

চাপাইনবয়াবগঞ্জে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ১২ টি নির্বাচনী অফিসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ

  • Last update: Monday, January 30, 2023

জাতীয় সংসদ উপনির্বাচনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সামিউল হক লিটনের (আপেল প্রতীক) ১১টি নির্বাচনি অফিস ভাঙচুর ও একটিতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে ফেস্টুন পোস্টার ও ব্যানার।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) রাতে শহরের বাতেন খাঁর মোড়ের প্রধান নির্বাচনি অফিস, হাজিপড়া, উদয়ন মোড়, রেলগেট, বিদিরপুর, উদয় সংঘ মোড়, ফুড অফিস মোড়ের অফিসসহ ১১টি নির্বাচনি প্রচার অফিস ভাঙচুর করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

খবর পেয়ে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাঈমা খান বাতেন খাঁর মোড়ের ভাঙচর করা প্রধান নির্বাচনি অফিস পরিদর্শন করেন। এদিকে রাত সাড়ে ১২টার দিকে শান্তি মোড়ে অবস্থিত নির্বাচনি প্রচার অফিসটিও ভাঙচুর করা হয়।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে ২০-২২ জন স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এসে অতর্কিতভাবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সামিউল হক লিটনের শহরের বাতেন খাঁর মোড়ের প্রধান নির্বাচনি অফিস ভাঙচুর করেন। এ ছাড়া মোটরসাইকেলযোগে এসে অন্যান্য নির্বাচনি অফিসগুলোতে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। এ সময় তারা নির্বাচনি কার্যালয়ের চেয়ার, টেবিলসহ নির্বাচনি সরঞ্জাম ভাঙচুর করে দ্রুত পালিয়ে যায়। আলীনগর রেলগেট মোড়ের নির্বাচনি অফিসটিতে অগ্নিসংযোগ করা হয়।

উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী সামিউল হক লিটন অভিযোগ করে বলেন, রোববার রাত ৯টার পর থেকে আমার ১১টি নির্বাচনি অফিস ভাঙচুর করেছে। আমার জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর লোকজন এ ধরনের নোংরা কাজ করেছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের কাছে প্রত্যাক্ষদর্শীরা ভাঙচুরকারীদের নাম বলেছে। আমি বিশ্বাস রাখতে চাই রিটার্নিং কর্মকর্তা ও স্থানীয় প্রশাসন এ বিষয়ে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম শাহিদ বলেন, দুর্বৃত্তরা দ্রুত এসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে পালিয়ে যায়। যার কারণে তাদের ধরা সম্ভব হয়নি। পুলিশের টহল টিম মাঠে কাজ করছে। অপরাধীদের শনাক্ত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক একেএম গালিভ খাঁন জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনি অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ম্যাজিস্ট্রেট পাঠানো হয়েছে। তারা মাঠে কাজ করছেন। নির্বাচনে এ রকম বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে থাকে। আমরা অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যপারে বদ্ধপরিকর। ভোটাররা ১ ফেব্রুয়ারি শান্তিপূর্ণ পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন, সেটি বাস্তবায়ন করাই আমাদের লক্ষ্য।

Drop your comments:

Please Share This Post in Your Social Media

আরও বাংলা এক্সপ্রেস সংবাদঃ
© 2023 | Bangla Express Media | All Rights Reserved
With ❤ by Tech Baksho LLC