May 19, 2022, 11:48 am

ঘুর্ণিঝড় অশনিঃ সাতক্ষীরায় ১৮১টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত

  • Last update: Tuesday, May 10, 2022

আবদুল্লাহ আল মামুন, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধিঃ সুন্দরবনাঞ্চল (শ্যামনগর) ঘূর্ণিঝড় অশনি মোকাবেলায় উপকূলীয় শ্যামনগর উপজেলায় ১৮১টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত করা হয়েছে।:প্রস্তুত করা হয়েছে প্রায় তিন হাজার সিপিপি স্বেচ্ছাসেবক। সিপিপি শ্যামনগর উপজেলার সহকারী পরিচালক মুনসী নূর মোহাম্মদ জানান, ঘূর্ণিঝড় আসানি মোকাবেলায় ১৮১টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত করা হয়েছে।

এর মধ্যে সরকার নিবন্ধিত আশ্রয়কেন্দ্র ১০৩টি। ইউনিয়ন অনুযায়ী আশ্রয়কেন্দ্রের সংখ্যা হল ভূরুলিয়া ১০টি, কাশিমাড়ী ১৪টি, শ্যামনগর ১৮টি, নূরনগর ১২টি, কৈখালী ১৯টি, রমজাননগর ১৩টি, মুন্সীগঞ্জ ১৭টি, ঈশ^রীপুর ১৬টি, বুড়িগোয়ালিনী ১৬টি, আটুলিয়া ১৯টি, পদ্মপুকুর ১৪টি ও গাবুরায় ১৩টি। এ সকল সাইক্লোন শেল্টারে অনুমান ১ লক্ষ ১০ হাজার মানুষ আশ্রয় গ্রহণ করতে পারবে বলে জানান তিনি। উপজেলায় ঘূর্নিঝড় মোকাবেলায় শুধুমাত্র সিপিপির স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রাখা হয়েছে ২৯৮০ জন। ইউনিয়ন অনুযায়ী স্বেচ্ছাসেবক সংখ্যা হলো- ভূরুলিয়া ২০০জন, কাশিমাড়ী ২৪০ জন, শ্যামনগর ১৮০ জন, নূরনগর ১৮০জন, কৈখালী ২২০জন, রমজাননগর ২৮০ জন, মুন্সীগঞ্জ ৩৬০জন, ঈশ^রীপুর ১৮০ জন, বুড়িগোয়ালিনী ২২০ জন, আটুলিয়া ৩২০জন, পদ্মপুকুর ৩৮০ জন ও গাবুরায় ২২০ জন। এছাড়া সিডিও ইয়ুথ টিম, সুন্দরবন সলিডারিটি টিম, জলবায়ু পরিষদ, যুব ফোরাম সদস্যবৃন্দ প্রস্তুত রয়েছে বলে জানা যায়। প্রস্ততকৃত সিপিপির ১৮১ জন সদস্য আশ্রয়কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে বলে জানা যায়।

Advertisements

সিপিপি সহকারী পরিচালক মুনসী নূর মোহাম্মদ আরও জানান, ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় উপকূলের জনসাধারণকে সচেতন করতে সিপিপি সদস্যবৃন্দ মৌখিকভাবে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিয়মিত আবহাওয়া বার্তা প্রচার করাসহ অন্যান্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে উপজেলা প্রশাসন থেকে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধের তালিকা তৈরী করা হয়েছে। তালিকা অনুযায়ী দ্বীপ ইউনিয়ন গাবুরায় ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধের স্থান ৬টি, পদ্মপুকুর ৮টি, বুড়িগোয়ালিনী ১১টি, আটুলিয়া ৩টি, রমজাননগর ৭টি, মুন্সিগঞ্জ ৩টি, কৈখালী ১২টি, কাশিমাড়ী ২টি ও নুরনগর ৩টি স্থান।

জানা যায়, এসকল ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধগুলির সংস্কার কাজ চলমান রয়েছে। উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী নীলডুমুর, পদ্মপুকুর খেয়াঘাটে বেশ কয়েকটি ট্রলারও প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়। ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রতিটি ইউনিয়নের জন্য মেডিকেল টিম প্রস্তুত করা হয়েছে। এদিকে গাবুরা, বুড়িগোয়ালিনী, আটুলিয়া, মুন্সিগঞ্জ, পদ্মপুকুর ইউনিয়নে আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আক্তার হোসেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহিনুল ইসলাম, সিপিপি শ্যামনগর উপজেলার সহকারী পরিচালক মুনসী নূর মোহাম্মদ, ইউনিয়ন চেয়ারম্যানবৃন্দ, ইউপি সদস্যবৃন্দ, সিপিপি ইউনিয়ন লিডার প্রমুখ।

Drop your comments:

Please Share This Post in Your Social Media

আরও বাংলা এক্সপ্রেস সংবাদঃ
© 2022 | Bangla Express | All Rights Reserved
With ❤ by Tech Baksho LLC