আমিরাতে বাংলাদেশি স্বেচ্ছাসেবক টিম প্রধান মামুনের করোনা জয়

আমিরাত সংবাদ টপ নিউজ
Share this news with friends:
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ করোনা জয় করে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন আমিরাতের দুবাই প্রবাসী বাংলাদেশি স্বেচ্ছাসেবক টিমের প্রধান মামুনুর রশীদ মামুন। আজ বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) সন্ধ্যায় দুবাইস্থ ইন্টারন্যাশনাল মর্ডান হসপিটাল থেকে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেন তিনি। মামুনুর রশীদ ১৫ দিন পূর্বে করোনার উপসর্গ নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি হোন। হাসপাতালে করোনা টেস্ট করলে তার শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে এবন সেখানে তাকে বিশেষ ব্যবস্থায় চিকিৎসা প্রদান করা হয়। গত ১৪ ও ১৬ জুন দুটি টেস্টে নেগেটিভ আসলে আজ তিনি হাসপাতাল ছেড়েছেন। হাসপাতাল ছাড়লেও কর্তৃপক্ষ তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দিয়ে রেখেছে। গত এপ্রিল-মে মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্য নগরী দুবাইয়ের নাইফ এলাকা কে দুবাই সরকার কর্তৃক ‘রেড জোন এলাকা‘ বলে ঘোষনা করে লকডাউন করে দেয়। সবাই যখন আত্মরক্ষায় লকডাউনে ঘরমুখি; তখন তিনি দুবাই প্রশাসনের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর সাথে লকডাউন এলাকায় বাংলাদেশি প্রবাসীদের স্বাস্থ্যসেবা ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ কমিউনিটির পক্ষ থেকে ‘বাংলা এক্সপ্রেস টিম‘ নামের ১৯ সদস্যের একটি স্বেচ্ছাসেবক টিম গঠন করে প্রবাসীদের সেবায় ঝাপিয়ে পড়েন। দেশীয় প্রবাসীদের জন্য খাবার ও পানীয় সরবরাহে দিনরাত একাকার করেছেন তার টিম নিয়ে এ সাংবাদিক ও ‘বাংলা এক্সপ্রেস টিম‘ স্বেচ্ছাসেবক টিম প্রধান।
বাংলা এক্সপ্রেস স্বেচ্ছাসেবক টিম
উক্ত এলাকায় লকডাউন শেষ হলেও থেমে থাকেননি তিনি। বাংলাদেশী প্রবাসীদের কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে তাকে হাসপাতালে পৌছানো, পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছানোর শিডিউল করে দেয়া এবং বাংলা এক্সপ্রেস এর পক্ষ থেকে প্রতিদিন ত্রাণ ব্যাগ সহযোগিতার কাজ তিনি তার টিম নিয়ে আক্রান্ত হবার পূর্বক্ষণ পর্যন্ত চালিয়ে গেছেন। অবশেষে নিজেই আক্রান্ত হলেন তিনি। এর আগে স্বেচ্ছাসেবক টিমের অন্যতম সদস্য কাজী ইসমাইল ও আরেক সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে কর্মে যোগ দিয়েছেন তারা। উল্লেখ্য যে, বাংলা এক্সপ্রেস এর সম্পাদক ও প্রকাশক মো: হারুনুর রশীদের প্রথম সন্তান মামুনুর রশীদ ১৯৯৮ সালে বাবা-মায়ের সাথে দুবাইতে আসেন।  শৈশব থেকে কৈশরে পদার্পন, প্রাইমারী থেকে ইউনিভার্সিটি পর্যন্ত সবই সমাপন করেছেন তিনি আমিরাতেই। দুবাই এর হ্যারিয়েট ওয়াট ইউনিভার্সিটিতে লেখাপড়া শেষ করে বর্তমানে ব্যবসা করছেন। লেখা পড়ার পাশাপাশি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ শেখা, সাংবাদিকতা ও বাবার সাথে পত্রিকায় লেখালেখি ও বিভিন্ন সংগঠনের বিশেষ পদের দায়িত্ব পালন করতেন। সদালাপী ও সামাজিক এই যুবক ২০০৭ থেকে ২০১২ পর্যন্ত ফরিদপুর প্রবাসী একতা সমিতির হিসাব রক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন। শিক্ষা জীবনের সমাপ্তি করে নিজস্ব মিডিয়া ব্যবসার পাশাপাশি একজন সফল সংগঠক ও সাংবাদিক হিসেবেও আমিরাতে বেশ পরিচিতি আছে তার। বর্তমানে আমিরাতে এনটিভির প্রতিনিধি এবং জনপ্রিয় প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকা বাংলা এক্সপ্রেসের সহ-সম্পাদক তিনি। ২০১৫ সাল থেকে আমিরাতের বহুল পরিচিত বাংলা সাংস্কৃতিক সংগঠন বাঁধন থিয়েটার এর যুগ্ম সম্পাদক ও গত বছর আমিরাতে সাংবাদিকদের সংগঠন  বাংলাদেশ প্রেসক্লাব ইউএই’র নির্বাচনে সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হোন মামুন।
Drop your comments:

Leave a Reply

Your email address will not be published.