সাতক্ষীরায় গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, পিতার দাবি হত্যা

জেলা সংবাদ টপ নিউজ বাংলাদেশ
Share this news with friends:

আবদুল্লাহ আল মামুন, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে আজমিরা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গৃহবধুর পিতা বলছেন আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত গৃহবধূ উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের প্রবাজপুর গ্রামের আমিনুল মোল্লার স্ত্রী ও একই ইউনিয়নের ছনকা গ্রামের শেখ আফজাল হোসেনের মেয়ে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে স্বামী।
নিহত গৃহবধূর পিতা জানান, প্রায় ১ বছর আগে চা বিক্রেতা আমিনুল মোল্লার সাথে তার মেয়ে আজমিরা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে জামাতা মাদক সেবন করে এসে মেয়েকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো। গত কয়েক দিন আগেও মেয়ে আজমিরা খাতুনকে নির্যাতন করে জামাতা আমিনুল। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আজমিরা বাবা মা’র কাছে চলে আসে। পরবর্তীতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দ শালিস মিমাংসার মাধ্যমে আজমিরাকে স্বামীর বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।

Advertisements

বুধবার (১৬ জুন) দিবাগত রাতে পরিকল্পিতভাবে মেয়ে আজমিরাকে হত্যা করে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে রেখে তার জামাতা আমিনুল পালিয়ে গেছে।

থানার উপ-পরিদর্শক সিহাবুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে রাত ২ টার দিকে তার নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় মৃতদেহ দেখতে পান। নিহত গৃহবধূর শরীরের দুই জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান তিনি।

থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা। নিহত গৃহবধূর স্বামী পলাতক রয়েছে বলে জানান তিনি।

Advertisements
Drop your comments: