December 2, 2021, 7:00 pm

‘দেশ-বিদেশে বিএনপিকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে’

  • Last update: Saturday, October 30, 2021

মোদাচ্ছের শাহ, ইউএই: ‘দেশ-বিদেশে বিএনপিকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। আপনারা দেশের জন্য কাজ করেন আর আওয়ামিলীগ দেশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। কোরআন  অবমাননা, সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম বাদ দেওয়া এসব দেশকে ভারতের অংগরাজ্য বানানোর নীলনকশার অংশ। দেশ না থাকলে পদ নিয়ে কি করবেন। তাই সবাইকে দলের গঠনতন্ত্র মেনে কাজ করতে হবে। দল দলের গতিতে চলবে কমিটি ও হবে।  দলের দুর্দিনে আপনারা সবাই একে অপরকে কটুক্তি না করে দেশ ও দলের জন্য কিছু করেন। সারাদেশে ও দেশের বাইরে ৮৫% লোক বিএনপি করে যদি নিরপেক্ষ ভোট হয় আওয়ামিলীগ ১০ টা আসন ও পাবেনা। দেশ কিন্তু শেখ হাসিনা চালাচ্ছেনা, চালাচ্ছে বাহিনী।  তাই সবাই একত্রিত হয়ে অগ্রসর হোন। ভুলে যান গ্রুপিং।  বিএনপিকে ক্ষমতায় আনতে হবে। সেই লক্ষে কাজ করুন। আমি চেষ্টা করব সবাইকে একত্রিত করে কাজ করার সুযোগ করে দিতে।’

আমিরাতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নিয়মিত সাংগঠনিক সভায় এসব কথা বলেন কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির সাংগঠনিক সমন্বয়ক জনাব আহমেদ আলি মুকিব।

Advertisements

গতকাল শুক্রবার আমিরাত কেন্দ্রীয় বিএনপির সভাপতি জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম তালুকদারের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুকিব আরো বলেন, ‘তারেক রহমান -ই বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ দিকপাল তিনি বলেন  বিএনপি ভাল থাকলে দেশ ভাল থাকে। আপনাদের কাছে অনুরোধ দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে না লিখে দলের পক্ষে লিখেন। আওয়ামিলীগের অরাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে লিখুন৷ আ.লীগের জুলুম নির্যাতনের বিরুদ্ধে লিখুন৷ মনে রাখবেন দল পরিচালনা করা তথা নেতৃত্ব আল্লাহর দান। কেউ উশৃংখল বক্তব্য দিলে আপনি যদি সুন্দর ভাবে তুলে ধরে তারা অনু-সূচনা করবে। আজকে যেখানে বসা হয়ছে এর বাইরে কমিটি দেওয়া যাবে কি? অবশ্যই আপনাদের বাইরে কমিটি দেওয়ার কোন এখতিয়ার নাই। আপনারা প্রতিযোগিতা করুন তা যেন প্রতিহিংসায় রোপ না দেয়। যে বা যারা গালিগালাজ করে তারা তাদের বংশের পরিচয় তুলে ধরেছেন। ব্যাক্তিগত সম্পর্ক ও লেনদেনের সঙ্গে দলের কোন সম্পর্ক নেই৷ আমি চেষ্টা করব সবাইকে নিয়ে কমিটি করতে।’

সভাপতির বক্তব্যে জাকির হোসেন বলেন, ‘আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশনায় করোনা মহামারি দুর্যোগ মোকাবেলায় ইউএইতে সর্বাত্মক কাজ করেছি ব্যাক্তিগত ও দলীয় ভাবে। এর পর আমার আমেরিকা প্রবাসী আম্মার মৃত্যুর পর আমাকে সেখানে যেথে হয়েছিল। যা আমার পাসপোর্ট সংক্রান্ত জটিলতার কারনে প্রয়োজনের অধিক সময় অবস্থান করতে হয়েছে। যা দলের দায়িত্বশীল দের অবগত করেছি। দেশের বাইরে অবস্থান করলেও আমি দলের সকল নেতাকর্মীদের সাথে জুম মিটিংসহ নানাভাবে সার্বক্ষণিক যোগাযোগের মাধ্যমে দলীয় ও জাতীয় সবগুলো অনুষ্টান পালন করেছি। আজকের প্রধান অতিথি ৩ গ্রুপের বিভক্তিকে অবসান করে ইউএই তে একটা কমিটি দিয়েছিলেন যার ফলস্রোতি হচ্ছে আজকের এই অনুষ্টান। যারা কাজ করেনা তাদের ভুল ও নাই, কাজ করতে গেলে মানুষ হিসাবে ভুল হওয়াটা-ই স্বাভাবিক তবে দেখতে হবে বেশিরভাগ সিদ্ধান্ত সঠিক হয়েছে কিনা। আজকে আপনাদের বক্তব্যে আমাকে কাজ করার গতি আরো বাড়িয়ে দিবে। ১৫১ কমিটি থেকে প্রায়ই ৫০ জনকে বাদ দিয়ে কমিটি অনুমোদন হওয়ায় সংগত কারণে অনেকেই মনখারাপ করেছে যা আমি নানাভাবে মেনেজ করার চেষ্টা করেছি এরপরও কিছু লোক দলের বাইরে রয়ে গেছেন, যারা সংখ্যায় অত্যন্ত কম। কিন্তু আপনি সমালোচনা ও আলোচনা যা করবেন তা অবশ্যই দলের ফোরামের ভিতরে হতে হবে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নির্দেশনা আছে দলের কারো বিরোদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়াতে বা ডাইরেক্ট কটাক্ষ করা যাবেনা। আজকের বক্তব্যে ও আমরা কারো বিরোদ্ধে কথা বলতে দেওয়া হয়নি। তিনি অনুরোধ জানান ব্যাক্তিগত কোন সমস্যা যাথে দলীয় ফোরামে না নিয়ে আসা হয়। তিনি বলেন ইনশাআল্লাহ প্রয়োজনে জীবন দিয়ে দেশনেত্রীকে মুক্ত ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান কে বীরের বেশে দেশে এনে বাংলাদেশ কে সৈরাচার মুক্ত করব।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আব্দুল মান্নান (সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক সাউদিয়া বিএনপি) বলেন, ‘আপনারা প্রমাণ করেছেন আপনারা কতটুকু সাংগঠনিক। আশাকরি আগামীর নেতৃত্ব আপনাদের থেকেই সৃষ্টি হবে। তিনি বলেন আহমেদ আলি মুকিব সাহেব অত্যন্ত সাংগঠনিক ও নির্লোভ একজন নেতা যিনি অত্যন্ত সহজ সরল লাইফ এক্সপেন্ড করেন। তিনি মুকিব সাহেবকে অনুরোধ করে বলেন আশাকরি আপনি সরাসরি না পারলে অন্তত জুম মিটিং এর মাধ্যমে একটা কাউন্সেলিং করার সুযোগ করে দিবেন।

Advertisements

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দলের উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সালাম খান বলেন,, আপনারা এত ব্যস্ততার পরও দল করেন সে জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আশাকরি আপনারা আরো বিশদ স্টাডি করবেন বিএনপির ইতিহাস ঐতিহ্য নিয়ে তাহলেই কেউ আপনাদের মিস গাইড করতে পারবেন না। জ্ঞান -ই শক্তি
বিএনপির উপদেষ্টা হওয়ার ক্ষেত্রে বিশেষ কিছু যোগ্যতার কথা বলা হয়েছে। বলার অর্থ হচ্ছে বক্তব্য দেওয়ার ক্ষেত্রে আরো সচেতন হতে হবে। তিনি আরো বলেন সংখ্যায় গুরুত্ব বিবেচনা হয়না কোয়ালিটি দিয়ে গুরুত্ব বিবেচনা করবেন। তিনি তার বক্তব্যে বলে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাহেবের সাথে একবার কথা বলার সুযোগ হয়েছিল তখন তিনি বলেছিলেন দল যাকে দায়িত্ব দিয়েছে তাদের সাথে কাজ করেন। যোগ্যতা থাকার সত্বেও সবাইকে সমানভাবে মূল্যায়ন করা সম্ভব না তিনি আরো বলেছিলেন মুল দলের ভাইরে কাজ করার কোন সুযোগ নেই ধারাবাহিকভাবে সবাইকে মূল্যায়ন করা হবে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক  আব্দুস সালাম তালুকদার প্রধান অতিথিকে লক্ষ করে বলেন, বিগত ৪ বছর আগে প্রধানত ৩ গ্রুপে বিভক্ত ইউএই বিএনপিকে একি চাদের নিছে বসিয়ে যেই কমিটি দিয়েছেন তারা একত্রীত ভাবে কাজ করেছেন। তাদের মধ্যে প্রায়ই ৫/৬ জন পরলোক গমন করেছেন কয়েকজন দেশ ত্যাগ করেছেন কয়েকজন ইন এক্টিভ বাকি  প্রায় ১০১ জনের কমিটির ৯০ জনের মত আমাদের সাথে কাজ করছেন। সেখান থেকে প্রায়ই পঞ্চাশ জনের মত আজকে আমাদের এখানে উপস্থিত,আপনার নির্দেশনা থাকায় সবাইকে উপস্থিত করতে পারিনি। তিনি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন Covid 19 থেকে আল্লাহ আপনাদের দোয়ায় আমাকে আবারো ফিরিয়ে দিয়েছে। দলের কাজ করতে গিয়েই আসলে ইফেক্টেড হয়েছি তারপর ও থেমে নেই আমাদের পথচলা।

অনুষ্ঠানে আরো যারা বক্তব্য রাখেন। উপদেষ্টা নুরুল আবছার (সুমন), আমিন আলী সহসভাপতি জনাব আমিরুল ইসলাম ও ইঞ্জিনিয়ার আঃরশিদ
সিঃ যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মাহমুদ, যুগ্ন সম্পাদক মাহে আলম, যুগ্ন সম্পাদক আঃকুদ্দুছ খালেদ।

Advertisements

সহ সাধারন সম্পাদক যথাক্রমে মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, আবুল কালাম আজাদ,মোহাম্মদ সোলাইমান, মোহাম্মদ ফারুক হোসেইন, সেলিম উদ্দিন খান,নুর হোসেন সুমন সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার জাহাঙ্গীর আলম রুপু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক যথাক্রমে কাজী শাহাদাত হোসেন টিপু,মোঃজামাল উদ্দিন, কয়েস আহমদ, শায়েদ আহম্মেদ রাসেল, দপ্তর সম্পাদক মোঃআলাউদ্দিন, মহিলা সম্পাদিকাসামছুন নাহার স্বপ্না, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম টিপু।

স্টেট বিএনপির সভাপতি বৃন্দ যথাক্রমে সাধারণ
আবুধাবি বিএনপির সভাপতি,ইসমাইল  হোসেন তালুকদার, সারজাহ বিএনপি সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার করিমুল হক।আজমান বিএনপির সভাপতি শাহিনুর শাহীন, আল আইন বিএনপির সভাপতি শওকত ওসমান, উম আল কুইন বিএনপির সভাপতি আব্দুল্লাহ আল ফারুক, মুসাফফা বিএনপির সভাপতি রুহুল আমিন, রাস আল খাইমা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত  সভাপতি আব্দুল খালেক, ফুজাইরা বিএনপির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম,দুবাই বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক জামাল উদিইন,  দুবাই বিএনপির সদস্য সচিব মজিবুল হক মঞ্জু,শারজাহ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম কিরন,
আজমান বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছায়েদ ভুইয়া
ফারুক, ফুজিরাহ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃসোলায়মান, আল আইন বিএনপির সাঃসম্পাদক আতাউর রহমান  আতা, মোছাফফা বিএনপি র সাধারণ সম্পাদক আহমেদ  হোসেন তালুকদার প্রমুখ ।

Drop your comments:

Please Share This Post in Your Social Media

আরও বাংলা এক্সপ্রেস সংবাদঃ
© 2022 | Bangla Express | All Rights Reserved
With ❤ by Tech Baksho LLC