জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসকদের বিশ্রামাগারে মাদক সেবন

টপ নিউজ বাংলাদেশ
Share this news with friends:

পটুয়াখালীর বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসকদের বিশ্রামাগারে মাদক সেবনের ঘটনায় তোলপাড় চলছে। ওই বিশ্রামাগারে মাদকের আসর থেকে ধারণ করা ৪০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপ ইতোমধ্যেই ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, জরুরি বিভাগের চিকিৎসক উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আবুল বাশার তাস খেলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তার পাশে পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক মো. মুনিবুর রহমান ওরফে সোহাগ মোল্লা মাদক সেবন করছেন। ওই আসরে বসে আছেন বহিরাগত এক যুবক। বহিরাগত ওই যুবক এর আগে ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে আটক হয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

Advertisements

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মাঝে-মধ্যেই জরুরি বিভাগে কর্তব্যকালীন ওই বিশ্রামাগারে মাদকের আসর বসান উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আবুল বাশার। সঙ্গে থাকেন বহিরাগত মাদকসেবীরা। সারারাত চলে তাস খেলা ও মাদকসেবন। এ সময় বিশ্রামাগারের বাইরে পাহারায় থাকেন বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নৈশপ্রহরী। গত ১৪ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে ওই বিশ্রামাগারের ভেতরে এমন একটি মাদকসেবনের দৃশ্য ধারণ করা ভিডিও ক্লিপটি একাধিক ব্যক্তির মোবাইলে ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় শুরু হয়।

অবশ্য ওই ভিডিও ক্লিপ সম্পর্কে আবুল বাশার ও মুনিবুর রহমান কিছুই জানেন না, এমনকি ভিডিও ক্লিপে থাকা ব্যক্তিদের মধ্যে তারা কেউ না বলেও দাবি করেন।

বাউফলের উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রশান্ত কুমার সাহা বলেন, নির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Advertisements

বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন, বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতরে মাদকের আসর বসার বিষয়টি দুঃজনক। এ বিষয়ে শিগগিরই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, যিনি অন্যায় করবেন তিনিই ফল ভোগ করবেন। তিনি বিষয়টি নিয়ে কোনো নিউজ না করার অনুরোধ করেন।

উৎসঃ যুগান্তর

Drop your comments: