ছাগল নিয়ে সেলফি, চোর ভেবে গাছে বেঁধে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতন

টপ নিউজ বাংলাদেশ
Share this news with friends:

দিনাজপুরের হাকিমপুরে ছাগল নিয়ে সেলফি তোলার সময় চোর বলে ধরে নিয়ে গাছে বেঁধে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। পরে নির্যাতনের অভিযোগে নাজমুল হোসেন নামে এক ইউপি সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে হাকিমপুর উপজেলার মোল্লাবাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার ১১ ঘণ্টা পর নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্য নাজমুল ইসলামকে আটক করছে পুলিশ। পরে দায়েরকৃত মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

Advertisements

শিক্ষার্থী আরিফ ও সৌরভ জানায়, শুক্রবার স্কুল বন্ধ থাকায় বাবার মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে যায় উপজেলার মোল্লাবাজার এলাকায়। তারা দুজনেই বাংলাহিলি পাইলট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র। রাস্তার পাশে একটি সুন্দর ছাগলের বাচ্চা দেখতে পেয়ে তারা কোলে নিয়ে সেলফি তোলার জন্য প্রস্তুত হন। এ সময় কয়েকজন লোক তাদের চোর চোর বলে বলে ধাওয়া করে।

এতে ভয় পেয়ে তারা দ্রুত মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাবার সময় তাদেরকে রাস্তার উপর থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে ছাগল চুরির অভিযোগ এনে ইউপি সদস্য নাজমুল হোসেনসহ কয়েকজন গাছের সঙ্গে বেঁধে এলোপাথাড়ি মারতে থাকে।

এদিকে সম্মানহানির কথা ভেবে ওই দুই ছাত্রের পরিবার বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চাইলে শুক্রবার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নির্যাতনের ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়ে। পরে বিষয়টি থানা পুলিশের নজরে এলে শুক্রবার সন্ধ্যায় হাকিমপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজ এলাকা থেকে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্য নাজমুল হোসেনকে আটক করেন।

Advertisements

হাকিমপুর থানা ওসি খায়রুল বাসার শামীম জানান, এ বিষয়ে নির্যাতনের শিকার স্কুল ছাত্র আরিফের বাবা উপজেলার মধ্যবাসুদেবপুর গ্রামের মনিরউদ্দীন হাকিমপুর থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ১০/১৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মুল আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, ভিডিও দেখে শনাক্ত করে বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Drop your comments: